জেনে নিন মশা কাদের বেশি কামড়ায়

মশা কি? আমরা সবাই জানি।মশা সবসময় আমাদের রক্ত খেয়ে থাকে। ‘ধুর, এই মশা শুধু আমাকেই কামড়ায় কেন!’
মশা কাদের বেশি কামড়ায় এবং কেন ? প্রশ্নটি আপনার মনে কি কখনো আসেনি? যদি এসে থাকে তাহলে আমাদের লেখাটি পড়ে যানতে পারবেন – মশা কাদের বেশি কামড়ায়।
মশা কেন ‘আপনাকে’ বেশি কামড়ায় এর কারণ আবিষ্কারের কাছাকাছি পৌঁছান সম্ভব হয়েছে বলে দাবি একদল গবেষকের। গবেষকরা বলছেন, সাধারণত স্ত্রী মশারাই মানুষকে কামড়ায়। এদের বিভিন্ন প্রজাতিই মানুষ কামড়ানোর জন্য দায়ী।কারন হিসেবে জানা যায় পুরুষ মশার খাদ্য রক্ত নয় কিন্তু মহিলা মশার প্রধান খাদ্য রক্ত।
মশারা সাধারণত O ব্লাড গ্রুপের মানুষদের রক্তের প্রতি বেশি আকৃষ্ট হয়। তারপরেই আছে B ব্লাড গ্রুপের রক্তের অধিকারীরা। আপনার ব্লাড গ্রুপ যদি A হয় তাহলে মশার কামড় থেকে আপনি অনেকটা রক্ষা পাবেন।
মশারও কিন্তু মেজাজ রয়েছে, বর্ণ-গন্ধ-স্বাদ বিচার করে, ভালো লাগলে তবেই সে হুল ফোটায়। যাদের শরীরের রঙ ডার্ক তাদের মশা বেশি পছন্দ করে। যাদের ত্বক গরম হয় এবং ঘামের পরিমাণ বেশি হয় মশা তাদের বেশি কামড়ায়। ঘামের মধ্যে থাকে ল্যাকটিক অ্যাসিড, ইউরিক অ্যাসিড, অ্যামোনিয়া, যার গন্ধেই মশারা আকৃষ্ট হয়। খেয়াল করে দেখুন, কিছুক্ষণ দৌড়ানোর পর মশারা ছেঁকে ধরে।
মশাদের হাত থেকে বাঁচার জন্য হালকা রঙের পোশাক পরুন কারন গাড় রঙের পোশাক পরলে তারা বেশি আকৃষ্ট হয়।
যারা বেশি মাত্রায় বিয়ার খান তাদের রক্তের প্রতিও আকৃষ্ট হয় মশারা। বিশেষ করে পরীক্ষা করে দেখা গেছে বিয়ার খাওয়ার ঠিক পরেই মশারা সেই ব্যক্তিকে বেশি করে কামড়ায়। ৫০ মিটার দূর থেকে গন্ধ পেয়ে মশারা কামড়াতে আসে। নেশার প্রতি মশার টানও কিন্তু কম নয়। গবেষকদের একাংশের দাবি, বিয়ার খেলে মশা বেশি কামড় দেয়। আসলে যে মদ খেলেই ঘামে ইথানলের মাত্রা বেড়ে যায়। বাড়ে শরীরের তাপমাত্রাও। যা দেখে ছুটে আসে মশার দল।
তবে প্রাচীন একটি বিষয় প্রচলিত রয়েছে যে, পর্যাপ্ত পরিমাণে রসুন গ্রহণ করলে ও চিনি এড়িয়ে চললে মশার কামড় থেকে দূরে থাকা সম্ভব। আর বাড়ির আশপাশ ও বাগান নিয়মিত পরিষ্কারের পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা।